এবার তানোরে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক, তানোর

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ১২:০৪ এএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২০ বুধবার | আপডেট: ১২:০৫ এএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২০ বুধবার

ফাইল ছবি।

ফাইল ছবি।

রাজশাহীর তানোরে পৌরসদরে গত রবিবার একটি ছাত্রাবাস থেকে এক কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধারের ঘটনার রেশ কাটটে না কাটতেই মঙ্গলবার আবারও এক বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করা করেছে থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার মুন্ডুমালা পৌর এলাকার ময়েনপুর গ্রামে নিজ ঘরে থেকে নাকে ডগাই ক্ষত অবস্থায় পাওয়া আব্দুল লতিব (৬৬) নামের এক বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার কনা হয়। পরে মরাদেহের ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে প্রেরণ করেছে থানা পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, আব্দুল লতিবের একটি ছেলে। ছেলের বৌ বাচ্চা হওয়ার জন্য মায়ের বাড়িতে গিয়েছে কয়েকমাস আগে। আর ছেলে তার বৃদ্ধ বাবা বাড়ি রেখে মাকে নিয়ে গত শনিবার বেড়ানোর উদ্যোশে গিয়েছিল আমনুরা বহরইল গ্রামে নানির বাড়িতে। মঙ্গলবার ছেলে বাড়িতে এসে দেখেন তার বাবা শয়ন কক্ষে মৃত অবস্থায় পড়ে আছে।

এদিকে বৃদ্ধের মৃত্যু নিয়ে গ্রামবাসীর মধ্যে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

তারা বলছেন, বৃদ্ধা আব্দুল লতিফ গত সোমবার তাকে গ্রামের সবাই দেখেছে। তাহলে একরাতে মধ্যে মারা যাওয়ার পরেই কি ভাবে তার নাকের ডগায় ইঁদুর বা ছুচা খেয়ে ফেললো। সে যদি দুই বা তিন আগে মারা গিয়ে থাকে তবে লাশ পচন ধরার কথা। কিন্তু পচন ও ধরেনি। এমন নানা প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন তারা।

নিহতের ছেলে আসাদুল বলেন, তার বাবার হার্ড, হাই-প্রেশারসহ না জটিল রোগে ভুকছিলেন। তবে কি কারণে তার বাবা মৃত্যু হয়েছে এমন বিষয়ে কোন কিছু বলতে পারছেনা।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে মঙ্গলবার রাতে তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাকিবুল হাসান জানান, নিহতের ছেলে ও স্ত্রী তিন দিন বাড়িতে ছিলেন না। বৃদ্ধ লতিফ একাই বাড়ি ছিল, তাই কবে মারা গেছেন তা বলা যাচ্ছে না। তবে, বৃদ্ধের শরীরে আঘাতের কোন চিহ্ন না থাকলেও তার নাকের ডগায় ইঁদুরে বা ছুচা কামড়ানোর ক্ষত পাওয়া গেছে। লাশটি উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রির্পোটে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় থানায় ইউডি মামলা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

স/এমএস