করোনা মহামারিতে পাপারাজ্জিদের পাশে ঋত্বিক রোশন

ডেস্ক নিউজ

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৪:৫৩ পিএম, ১৫ এপ্রিল ২০২০ বুধবার | আপডেট: ০৪:৫৪ পিএম, ১৫ এপ্রিল ২০২০ বুধবার

করোনা মহামারিতে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন বলিউডসংশ্লিষ্ট দিনভিত্তিক কর্মীরা। ইতোমধ্যে যারা বিভিন্ন সমিতির সঙ্গে যুক্ত তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বলিউড তারকারা। কিন্তু পাপারাজ্জিদের মতো যারা ছবি তুলে পেট চালান, যারা কোনো সমিতির সদস্য নন, তাদের কথা আর কেউ না ভাবলেও অন্তত একজন সুপারস্টার তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন, তিনি ঋত্বিক রোশন।

 

বলিউডে পাপারাজ্জিদের শিরোমনি বিরল ভায়ানি। সেলেব্রিটি তারকাদের আনঅফিসিয়াল ছবি তোলায় সিদ্ধহস্ত তিনি। তবে তিনি একা নন, তার একটি দল রয়েছে যারা ছড়িয়ে ছিটিয়ে বিভিন্ন স্থান থেকে তারকাদের ছবি তোলেন। ছবিগুলো ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক মাধ্যমে। তাই বিরল ভায়ানির পাপারাজ্জি দলকে বলা হয় ‘ভাইরাল বাহিনী’। 

পাপারাজ্জিদের তোলা এই ছবি বিক্রি করে কিংবা সামাজিক মাধ্যমে বিজ্ঞাপন থেকে প্রাপ্ত আয়ের টাকায় তাদের অন্নসংস্থান হয়। কিন্তু বর্তমান লকডাউনে কোনো তারকাই ঘর থেকে বের হচ্ছেন না। সবাই এখন ঘরবন্দি জীবন কাটাচ্ছেন। ফলে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন পাপারাজ্জিরাও। 

শুধু বিরল ভায়ানির একার পরিবার নয়, তার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অন্তত ১৫টি নিম্ন-মধ্যবিত্ত পরিবার কর্মহীন হয়ে পড়েছে। পাপারাজ্জিরা কোনো চলচ্চিত্র সমিতির সদস্য না হওয়ায় তাদের কাছে পৌঁছায়নি ত্রাণসামগ্রী।

ইতোমধ্যে সালমান খান, করণ জোহর, তাপসী পান্নু, রাজকুমার রাওসহ আরও অনেক বলিউড তারকা দৈনিক মজুরদের জন্য তহবিলে অর্থ দিয়েছেন। কিন্তু সে সহায়তা থেকে বঞ্চিত থেকেছেন পাপারাজ্জিরা। অবশেষে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন ঋত্বিক রোশন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিরল ভায়ানি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে এ খবর প্রকাশ করেন।

ইনস্টাগ্রামে বিরল ভায়ানি লেখেন, করোনা ভাইরাসের কারণে আমাদের সকলের জীবনেই বিপর্যয় নেমে এসেছে। আমার বড় একটি দল রয়েছে যারা তারকাদের ছবি তোলার জন্য নিরলস কাজ করে যান। কিন্তু এই দুর্যোগকালে আমার আয়ের একমাত্র পথটি বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে আমার পরিবার এবং আরও ১৫টির বেশি পরিবারের জন্য অন্নসংস্থান কঠিন হয়ে পড়েছে। এরা সকলেই আমার ছবির সাবস্ক্রিপশন ও ইনস্টাগ্রামে পেইড পোস্ট থেকে প্রাপ্ত টাকা দিয়ে সংসার চালায়। 

তিনি লেখেন, ‘এরকম সংকটকালে ঋত্বিক রোশন নিজেই এগিয়ে এসেছেন এবং নিম্ন-মধ্যবিত্ত পরিবারের এই পাপারাজ্জিদের সহায়তা করেছেন। এই অভাবের সময় আমাদের সাহায্য করায় ঋত্বিকের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।’

ইতোপূর্বে ঋত্বিক রোশন মুম্বাই মিউনিসিপ্যাল করপোরেশনের কর্মী এবং অন্যান্য কর্মচারীদের জন্য এন৯৫ এবং এফএফপি৩ মাস্ক বিনামূল্যে সরবরাহ করেছেন।  দিনমজুর এবং অসহায় মানুষদের জন্য খাবারের ব্যবস্থাও করেছেন তিনি।  লকডাউনে কর্মহীন হয়ে পড়া প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন ‘ওয়ার’খ্যাত এই সুপারস্টার।

স/র