গোদাগাড়ীতে অস্ত্রধারী জামায়াত ক্যাডারে অতিষ্ট এলাকাবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৬:৩৫ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০২০ শনিবার | আপডেট: ০৬:৩৬ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০২০ শনিবার

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় এক অস্ত্রধারী ক্যাডারের তান্ডবে অতিষ্ট হয়ে পড়েছে এলাকাবাসী । প্রকাশ্যে অস্ত্র উঁচিয়ে চলাফেরা করার কারণে ভয়ে কেউ মুখ খুলতে পারছে না। সেই এলাকার ব্যবসায়ীরা তার কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে। প্রকাশ্যে অস্ত্র উঁচিয়ে চলাফেরা করা সন্ত্রাসী উপজেলার মাটিকাটা ইউনিয়নের হরিশংকরপুর গ্রামের মৃত. দিন মোহম্মদের ছেলে উলফাত উদ্দিন (৪৫)।

পিরিজপুর গ্রামের বাপ্পি ভিশন নেটওয়ার্কের ডিস লাইস ব্যবসায়ী তিতুমির অভিযোগ করেন, তিনি ২০০৪ সাল হতে পিরিজপুর , হরিশংকরপুর সহ মাটিকাটা ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় ডিস লাইনের ব্যবসা করে আসছে। কিন্তু হঠাৎ করেই উলফাত উদ্দিন নামের এক সন্ত্রাসী আমাকে ওই এলাকায় ব্যবসা করতে বাঁধা প্রদান করেন।

তার বাড়ী হরিশংকর পুর হওয়াতে ওই এলাকায় আমার দেওয়া লাইন কেটে দিয়ে সে নিজে লাইন দিয়ে বলে আমি এলাকায় ব্যবসা করবো কেউ করতে পারবে না। গত ৪ ডিসেম্বর ২০১৯ উলফাত আলী বাপ্পি নেটওয়ার্কের কর্মচারী আফজাল লাইনে কাজ করলে তাকে হাঁতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। পরে থানায় অভিযোগ দিলে মিমাংসার উদ্যোগ নেয় পুলিশ। তবে সেই বিচার মানিনা বলে এলাকায় আবারও অরাজকতা সৃষ্টি করে।

তিতুমির আরো অভিযোগ করেন, আমি নিজে গত ১৬ জানুয়ারী ২০২০ ইং তারিখে মোটর সাইকেল যোগে ভাটোপাড়া মসজিদের কাছে পৌছলে সন্ত্রাসী উলফাত উদ্দিন ও তার সহযোগী রতন আলী (৩২) বড় দুইটি ধারালো রামদা নিয়ে পিছু নেয়। আমাকে দেখা মাত্রই রামদা নিয়ে গিয়ে প্রাণনাশের উদ্দেশ্যে মারধর করতে যায়। এতে ওই এলাকার এক দোকানদার তাকে দ্রুত সরিয়ে নিলে প্রাণে বেঁচে যায়। এই নিয়ে তিতুমীর নিজের প্রাণের শঙ্কায় দিন যাপন করছে।

তিতুমির আরো জানান, গত ২০১৩ সালে জামায়াত নেতার ফাঁসির রায়ে মহিশালবাড়ীতে আওয়ামীলীগ নেতার তেলের মিল পোড়ায় অংশ গ্রহণ করেছিলো উলফাত উদ্দিন। তার নামে গোদাগাড়ী মডেল থানায় নাশকতা মামলা রয়েছে। সে একজন জামায়াতের প্রশিক্ষিত দুর্ধর্ষ ক্যাডার। সে মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবনের সাথে জড়িত। তার প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে চলা ফোরার কারণে এলাকার অন্যব্যবসায়ী ও স্থানীয় লোকজন আতঙ্কে আছে।

পুলিশের কাছে অভিযোগ দেবার পরও সে বেপরো আচরণ করায় এখন পর্যন্ত থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি তবে মামলা করবেন বলে জানান তিতুমির।

সন্ত্রাসী উলফাত ও তার সহযোগি রতন কে নিয়ে প্রকাশ্যে ধারালো রামদা নিয়ে চলাফেরা করার একটি ভিডিও ক্লিপ এই প্রতিবেদকের কাছে পৌঁচেছে। তাতে দেখা যায় উলফাত ও রতন ধারালো রামদা দুটি বাঁশের চং এ ভরে রেখে মোটর সাইকেলে চড়ে দ্রুত চলে যাচ্ছে।

এইসব অভিযোগের বিষয়ে উলফাত উদ্দিনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমারও ডিস লাইনের ব্যবসা আছে এতে করে গোদাগাড়ী ডিস লাইন কন্ট্রোল রুম লাইন ভাগ করে দিয়েছে। অভিযোগকারিরা আওয়ামীলীগ করে তাই তারা মানতে চাইনা। রামদা হাতে নিয়ে ছবির কথা বললে তিনি বলেন, ওই ছবিটা তারা কখন যেন এডিট করে এমন কান্ড করে ফেলেছে তা ঠিক নয়। প্রকাশ্যে রামদা নিয়ে চলাফেরা করার একটি ভিডিও আছে বললে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেন নি।