চাঁদাবাজীর মামলায় রাজশাহী কলেজ ছাত্রলীগ নেতা নাঈম গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৬:২৪ পিএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ বুধবার

রাজশাহী কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাইমুল হাসান নাঈমকে চাঁদা আদায় ও কোচিং সেন্টারের চেয়ার টেবিল লুট করে নিয়ে যাওয়ার মামলায় গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুর ২টার দিকে নগরীর সিএন্ডবি মোড় থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে তার সহযোগী আসাদ ওরফে ডিজে আসাদকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বোয়ালিয়া থানা পুলিশের ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মন জানান, রোববার রাতে বোয়ালিয়া থানায় নাঈমের বিরুদ্ধে এজাহার দাখিল করেন ইউনিক কেয়ার কোচিংয়ের পরিচালক রায়হান হোসেন। অভিযোগে বলা হয়, রাজশাহী কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাইমুল হাসান নাঈম ও তার সহযোগী আসাদ ও মারুফসহ আরো বেশ কয়েকজন ইউনিক কেয়ার কোচিং এর পরিচালক রায়হান ও ফিজিক্স কোচিং এর পরিচালক নুরুল ইসলামের কাছে চাঁদা কাছ থেকে প্রায়ই চাঁদা নিতো। রোববার রাতে তারা আবারো চাঁদা নিতে যায়। এসময় তারা ১০ হাজার টাকা চাঁদা চাইলে তাদের ৩হাজার টাকা চাঁদা দেয়। চাঁদার পরিমাণ কম হওয়ায় তারা ক্ষিপ্ত হয়ে কোচিং সেন্টারে ভাংচুর চালায়। এসময় তারা ১০টি চেয়ার টেবিল নিয়ে চলে যায়। পরে রোববার রাতেই তারা বোয়ালিয়া থানায় অভিযোগ দেন রায়হান। পুলিশ ঘটনার সত্যাতা পেয়ে সকাল ১০টার দিকে কাদিরগঞ্জ এলাকা থেকে ডিজে আসাদকে গ্রেফতার করে। এরপর দুপুর দুইটার দিকে সিএন্ডবি মোড় থেকে ছাত্রলীগ নেতা নাঈমুল হাসান নাঈমকে গ্রেফতার করে।

কোচিং এর পরিচালক রায়হান হোসেন জানান, গত বৃহস্পতিবার নাঈম, আসাদ ও মারুফ এসে তিন হাজার টাকা চাঁদা নিয়ে যায়। চাঁদা কম হওয়ায় সেদিন তারা কোচিংয়ের জানালা, টেবিল, চেয়ার ভাংচুরের পাশাপাশি এক কর্মচারীকে মারধরও করে। এরপর রোববার আবার তারা চাঁদা দাবি করে। তখন টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে কোচিং ভাংচুর করে চেয়ার টেবিল নিয়ে যায়।

ওসি আরো জানান, এঘটনায় চাঁদা আদায়, ভাংচুরসহ বিভিন্ন অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। গ্রেফতারের পর তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।