নাটোরে ফুল চাষী ও ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৫:১৩ পিএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ শনিবার

নাটোরের লালপুরে ফুল চাষী ও ব্যবসায়ীরা মানববন্ধন করেছে। শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় লালপুর বাজার ত্রিমোহনী সড়কে ফুল চাষী ও ব্যবসায়ীদের সমস্যা ও সম্ভাবনা সরকারের বিভিন্ন মহলে দৃষ্টিআকর্ষনের লক্ষ্যে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনকালে বক্তব্য দেন, আগারগাঁও পাইকারী ফুল ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি লি.-এর সভাপতি নূর মোহাম্মদ, বাংলাদেশ ফ্লাওয়ার সোসাইটির সহ-সভাপতি এম এ হান্নান এবং ঢাকা ফুল ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতি লি.-এর সভাপতি শ্রী বাবুল প্রসাদ স্বাক্ষরিত লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, সারাদেশের ফুলচাষী ও ফুল ব্যবসায়ীদের সমস্যা ও সম্ভাবনা সরকারের বিভিন্ন মহলের দৃষ্টি আকর্ষনের লক্ষ্যে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ১৯৮৭ সালে বাণিজ্যিকভাবে ফুল শিল্পের যাত্রা শুরু হয়। দীর্ঘ ৩৩ বছরে নানা ঘাত-প্রতিঘাত, সমস্যা সংকুল অবস্থায় দেশের ফুল চাষী ও ফুল ব্যবসায়ীদের যৌথ সংগ্রামের ফলে বর্তমানে ফুল শিল্পে প্রায় ৩০ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান এবং বাৎসরিক ১২’শ কোটি টাকার অভ্যন্তরীন ফুলের বাজার সৃষ্টি হয়েছে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ ফুল রপ্তানীর মাধ্যমে তাদের রাজস্ব আয়ের বড় একটা অংশ দখল করেছে। সেখানে ইতোমধ্যে কিছু ব্যবসায়ী চীন, থাইল্যান্ড, ভারত থেকে কাঁচা ও প্লাস্টিক ফুল আমদানীর চক্রান্তে আমাদের দেশীয় ফুল শিল্প ধ্বংসের ও চরমভাবে হুমকির সম্মুখীন। আবার কাঁচা ফুলে বিভিন্ন ভাইরাসের উপস্থিতির গুজব ও অপপ্রচার চালাচ্ছে। ফুল শিল্প রক্ষায় তারা পাঁচ দফা দাবি পেশ করেন,

১. নভেলা করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের কারণে হুমকির মুখে বাংলাদেশ। চীন থেকে কাঁচা ও প্লাস্টিক ফুল আমদানী বন্ধ করা, ২. বিদেশ থেকে কাঁচা ও প্লাস্টিক ফুল আমদানী বন্ধ করে দেশের ফুল শিল্প রক্ষায় পদক্ষেপ গ্রহণ করা, ৩. ফুল শিল্পের প্রসারের লক্ষ্যে কীটনাশক ও আনুসঙ্গিক কৃষি উপকরণ সহজ লভ্য করা, ৪. বিদেশে অবস্থানরত আমাদের দূতাবাসের মাধ্যমে বাংলাদেশে উৎপাদিত কাঁচা ফুল সম্পর্কে প্রচারণার মাধ্যমে দেশী ফুলের রপ্তানীর সুযোগ সৃষ্টি করা এবং ৫. দেশে উৎপাদিত কাঁচা ফুল সুষ্ঠু বিপননের জন্য ঢাকায় কেন্দ্রীয় পাইকারী ফুলের বাজার স্থাপন করা।