Advertisement

নীলফামারীতে তামাকের অবৈধ বিজ্ঞাপন প্রদর্শণের দায়ে জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৭:৪৬ পিএম, ২৮ জানুয়ারি ২০২০ মঙ্গলবার

নীলফামারী সদর উপজেলার চড়াইখোলা বাজারে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন লঙ্ঘন করে তামাকের অবৈধ বিজ্ঞাপন প্রদর্শণের দায়ে পাঁচ তামাক বিক্রেতাকে ২৩০০ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) বিকালে ওই বাজারে নীলফামারী জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদুর রহমান এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। এছাড়া বিকালে উপজেলার ইটাখোলা ইউনিয়নের কালার বাজারে পাবলিক প্লেসে ধূমপান করার অপরাধে তিন ধূমপায়ীকে ২০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। 

এসময় সদর উপজেলা স্যানেটারী ইন্সপেক্টর আল-আমিন হোসেন,  উন্নয়ন  ও মানবাধিকার সংস্থা ‘এ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্ট-এসিডি’র তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের পার্টনার এনজিও ‘ডেভেলপমেন্ট কাউন্সিল-ডিসি’র এর প্রোগ্রাম অফিসার মোহায়মিনুল ইসলামসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা স্যানেটারী ইন্সপেক্টর আল-আমিন হোসেন বলেন, ‘ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন-২০০৫ (সংশোধিত আইন-২০১৩) এর ধারা-৫ (ছ) অনুযায়ী- বিক্রয়স্থলে বা অন্য কোনো স্থানে তামাকজাত দ্রব্যের সকল ধরনের বিজ্ঞাপন প্রচার, প্রমশন কিংবা প্রদর্শণ নিষিদ্ধ। তাই তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে সদর উপজেলার ওই বাজারে অভিযান চালিয়ে ৫ তামাক বিক্রেতাকে মোট ২৩০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

এছাড়া সদর উপজেলার ইটাখোলা ইউনিয়নের কালার বাজারে তামাক নিয়ন্ত্রণের আইনের ৪ (১) ধারা লঙ্ঘন করে পাবলিক প্লেসে ধুমপান করার দায়ে তিন ধূমপায়ীর মধ্যে দুইজনকে ৫০ টাকা করে এবং একজনকে ১০০ টাকা জরিমানা করা হয়। 

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদুর রহমান বলেন, ‘সরকারের তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে নীলফামারীতে মাঝেমধ্যেই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। তারই অংশ হিসেবে এই অভিযান চালানো হয়েছে। জনস্বার্থে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

উন্নয়ন ও মানবাধিকার সংস্থা ‘এ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্ট-এসিডি’র তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের প্রোগ্রাম ম্যানেজার মোস্তফা কামাল আব্বাস সিদ্দিকী বলেন, ‘এসিডি ২০১০ সাল থেকে সরকারের তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের ১৬ জেলায় বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে ভ্রাম্যামাণ আদালত পরিচালনা করায় এসিডির পক্ষ থেকে নীলফামারী জেলা প্রশাসনের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। এভাবে প্রশাসনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকলে উত্তরাঞ্চলে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়ন সহজ হবে।’

স/এমএস