পুঠিয়ায় তরুণীর রহস্যজনক মৃত্যু, আটক ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৮:২৯ পিএম, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ মঙ্গলবার | আপডেট: ০৮:৩৫ পিএম, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ মঙ্গলবার

রাজশাহীর পুঠিয়া রাজবাড়ীতে বন্ধুদের সাথে বেড়াতে এসে রুমিয়া খাতুন (১৯) নামের এক তরুণীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর ১২টার সময় পুঠিয়া রাজবাড়ি ভূমি অফিসের পেছনে এ ঘটনা ঘটে।

এই নিয়ে স্থানীয় জনমনে নানা প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ওই তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করেছে এবং মেয়ের তিন বন্ধুকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো, পুঠিয়া উপজেলা সদরের কাঁঠালবাড়িয়া গ্রামের সেলিম ইবনে হক টিপুর ছেলে সায়েক আব্দুর রহমান ওরফে সায়ক, উপজেলার রাজবাড়ি বাজার এলাকার মেহেদী হাসান রাজ ও আরেকজনের নাম প্রাথমিকভাবে জানা যায়নি।

মৃত রুমিয়া খাতুন নাটোর জেলার বাগাতিপাড়া উপজেলার জামনগর ইউনিয়নের রৌশনগিরীপাড়া গ্রামের নুর ইসলামের মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মৃত ওই তরুণী কয়েকজন বন্ধু ও বান্ধবির সাথে সকাল ১১টার দিকে রাজবাড়ীতে বেড়াতে আসেন। হঠাৎ দুপুরের দিকে উপজেলা ভূমি অফিসের পেছন থেকে তার সঙ্গীরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। বিষয়টি আশে পাশের লোকজন টেরপেয়ে মেয়েটিকে মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে পুঠিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিসাধীন অবস্থায় দুপুর আড়াইটার দিকে তিনি মারা যান।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, নির্জন এলাকা হওয়ায় ওই মেয়েটিকে তার সাথে আসা বন্ধুদের মধ্যে কেও অথবা একাধিক বন্ধু জোরপূর্বক শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করছিল। পরে ব্যর্থ হয়ে শ্বাসরুদ্ধ অথবা বিষক্রিয়া করে হত্যার চেষ্টা করছিল। এক পর্যায়ে রুমিয়া খাতুন জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তার বন্ধুরা তাকে মৃত ভেবে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে আমরা হাসপাতাল থেকে মেয়েটির লাশ উদ্ধার করেছি। লাশের ময়না তদন্তের জন্য বুধবার সকালে রামেক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন আসার পর সঠিক মৃত্যুর সঠিক রহস্য পাওয়ার যাবে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে মেয়েটি বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। কারণ তার কাছে একটি বিষের বোতল পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে মৃতের পরিবারকে খবর দেয়া হয়েছে ও থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, জিঙ্গাসাবাদের জন্য মেয়ের তিন বন্ধুকে আটক করা হয়েছে।