প্রতিরাতে অভুক্ত কুকুরকে খাওয়াচ্ছেন ছাত্রলীগ নেতা রাশেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ১১:৩৯ পিএম, ৭ এপ্রিল ২০২০ মঙ্গলবার | আপডেট: ১১:৩৯ পিএম, ৭ এপ্রিল ২০২০ মঙ্গলবার

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে রাজশাহী মহানগরীর খাবারের দোকানপাট ও হোটেলগুলো বন্ধ। তাই খাবারের উচ্ছিষ্ট আর জুটছে না কুকুরের কপালে। করোনা আতঙ্কে কুকুরকেও বাড়ির আশপাশে খাবার দিচ্ছেন না অনেকে। ফলে খাবার না পেয়ে হিংস্র হয়ে উঠছে প্রাণীগুলো।

এ অবস্থায় রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে কুকুরকে খাবার খাওয়ানোর উদ্যোগ গ্রহণের পর এবার এ কাজে এগিয়ে এসেছেন কয়েকজন তরুণ। প্রতিরাতে রান্না করে কুকুরকে খাওয়াচ্ছেন তারা। কুকুরের খাবার তালিকায় আছে খিচুড়ি ও মুরগির মাংস। এই মানবিক এ উদ্যোগের নেতৃত্বে দিচ্ছেন রাজশাহী পলিটেকনিক শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাশেদ রহমান।

রাশেদ রহমান জানান, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে খাবার সংকটে পড়েছে অবলা প্রাণীগুলো। এজন্য ৫ এপ্রিল রাত থেকে কুকুরকে খাওয়ানো শুরু করেছেন তারা। প্রতি রাতে ১০ কেজি চাল ও ৩ কেজি মুরগির মাংস রান্না করা হয়। রান্নার পর সেগুলো ভ্যানে করে নিয়ে মহানগরীর বিভিন্ন মোড় ও অলি-গলিতে ভাগ ভাগ করে রাখা হয়। ক্ষুধার্ত কুকুরগুলো মুহূর্তের সেগুলো খেয়ে সাবাড় করে দেয়।

রাশেদ রহমান জানান, তাকে এই কাজে সহযোগিতা করছে কয়েকজন বন্ধু ও ছোটভাই। অবলা অভুক্ত প্রাণীদের মুখে খাবার তুলে দিতে পেরে তার অত্যন্ত ভালো লাগে। কারোনা ভাইরাস পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এভাবে প্রতিদিন কুকুরকে খাওয়ানো হবে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত ৫ এপ্রিল থেকে কুকুরকে খাওয়ানো শুরু করেছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন। কাজে নগরবাসীকেও এগিয়ে আসার আহবান জানানো হয়েছে। এরপর থেকে অনেকে এগিয়ে এসেছেন মানবিক এই কাজে।

স/এমএস