প্রথমবারের মত রাজশাহীতে ‘অভিবাসী চাকরি মেলা’

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৪:১১ পিএম, ১২ নভেম্বর ২০১৯ মঙ্গলবার

রাজশাহীতে এই প্রথম এককভাবে ‘অভিবাসী চাকরি মেলা’র অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বিশ্বের সবচেয়ে অর্থনৈতিক শক্তিধর দেশ চীনে শিক্ষিত ও দক্ষ জনশক্তি পাঠানোর লক্ষ্যে সরকার অনুমোদিত রিক্রুটিং এজেন্সি সাইক ওভারসিজ আগামী ১৬ নভেম্বর শনিবার সকাল ১০টায় রাজশাহীর সপুরা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে (টিটিসি) এ মেলার আয়োজন করতে যাচ্ছে।

মেলার মাধ্যমে রাজশাহীর ন্যুনতম স্নাতক ডিগ্রিধারী ৫০ জন গ্রাজুয়েট স্বল্পখরচে চাকরি নিয়ে চীনে যাওয়ার জন্য প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত হবেন।

দিনব্যাপি এ মেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন, অভিবাসন ও উন্নয়ন বিষয়ক সংসদীয় ককাসের চেয়ারম্যান মো. ইসরাফিল আলম এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে রাজশাহীর জেলা প্রশাসক হামিদুল হক উপস্থিত থাকবেন। সভাপতিত্ব করবেন, সাইক ওভারসিজ ও সাইক গ্রুপের সম্মানিত চেয়ারম্যান আবু হাসনাত মো. ইয়াহিয়া।

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে যারা স্নাতক ডিগ্রি বা সমমানের পরীক্ষায় পাস করেছেন তারা দেশটিতে চাকরি নিয়ে যাওয়ার জন্য ইন্টারভিউ পর্বে অংশ নিতে পারবেন। চীনের জিয়াংশি প্রদেশের ২টি কারখানার জন্য অপারেটর হিসেবে যাওয়ার সুযোগ তৈরি হয়েছে। উন্নত পরিবেশে থাকা-খাওয়া, মেডিকেল, ইন্স্যুরেন্সসহ লোকাল ট্রান্সপোর্ট কোম্পানি বহন করবে। বেতনও অনেক দেশের তুলনায় স্ট্যান্ডার্ড মানের। কাজের পরিবেশ অত্যন্ত চমৎকার। কায়িক পরিশ্রমের কোনো বিষয় নেই।

আয়োজন সম্পর্কে সাইক ওভারসিজের পরিচালক নূরনবী সিদ্দিক সুইন জানান, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্প্রতি রাজশাহীসহ জেলায় জেলায় ‘‘সাইক ওভারসিজ”কে (আরএল ১৬৮৪) চাকরি মেলা আয়োজন করার অনুমতি প্রদান করেছে।

এছাড়া জেলা প্রশাসন, টিটিসি ও জেলা জনশক্তি অফিস সার্বিক সহযোগিতা করছে। দেশের শিক্ষিত ও দক্ষ জনশক্তির বড় একটি অংশকে দেশের বাইরে সম্মানজনক কাজে পাঠানোর জন্য আমরা কাজ করছি। মেলায় চাইনিজ ডেলিগেটের কাছ থেকে চীনে গমনেচ্ছুকরা দেশটিতে কাজের পরিবেশ, থাকা-খাওয়াসহ নানাবিধ বিষয়ে সম্যক ধারণা পাবেন।

তাছাড়া সাইক ওভারসীজ এর র্উ্ধতন কর্তৃপক্ষ এরই মধ্যে কারখানা ও ডরমেটরিগুলো পরিদর্শন করে এসেছেন। খুব কম সময়ের মধ্যে চীন আমাদের দেশের জন্য বড় শ্রমবাজার হয়ে ঊঠবে বলে আশা করছি। মেলার মাধ্যমে গ্রাজুয়েটদের মাঝে সেই প্রচারটিই আমরা করতে চাই।