বেড়ায় “ভাপা পিঠা” বিক্রির ধুম

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৭:২০ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০১৯ বৃহস্পতিবার

শীতকাল মানেই পিঠা-পার্বণ। এ দেশ পিঠার দেশ। নানা রকম পিঠার বৈচিত্র্য এদেশে লক্ষ্য করা যায়। শীতকালে অন্যসব পিঠার মধ্যে জনপ্রিয় পিঠার নাম হলো ’ভাপা পিঠা’। চাউলের গুড়ো আর পাঁটালি গুড় দিয়ে স্বুস্বাদু এই পিঠা তৈরি করা হয়। শীতের সকালে ভাপা পিঠার সাথে অন্য কোনো পিঠার তুলনা চলে না।

পাবনার বেড়া উপজেলায় শীতের শুরুতেই মৌসুমি পিঠা ব্যবসায়ীরা পিঠা তৈরি ও বিক্রি শুরু করেছেন। বেড়া উপজেলার সর্বত্রই পিঠা ব্যবসায়ীদের চোখে পরে। সিএন্ডবি বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন উভয় পাশে প্রতিদিন কাকডাকা ভোর থেকেই পিঠা তৈরির কার্যক্রম শুরু হয়। দশ থেকে বারো জন ব্যবসায়ীকে পিঠা বিক্রি করতে দেখা যায়। সূর্য ওঠার আগ থেকে শুরু করে সকাল নয়টা পর্যন্ত এবং বিকেল পাঁচটা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত পিঠা তৈরি করতে দেখা যায়।

রশিদ নামে একজন পিঠা ব্যবসায়ী জানান, তিনি প্রতিদিন দুই বেলা মিলিয়ে প্রায় ত্রিশ কেজি চাউলের গুড়া প্রয়োজন হয়। সেই সাথে প্রয়োজনমতো পাঁটালি গুড়। দুই ধরনের চাল দিয়ে পিঠা তৈরি হয়। সাদা এবং লাল। তবে গুড় মেশানো পিঠার চাহিদাই বেশি। পিঠার দাম পাঁচ থেকে দশ টাকা। পুরো শীতের মৌসুমেই চলবে এই পিঠা বিক্রি।