ভ্যানে চড়ে ঈদ উপহার নিয়ে কর্মহীনদের বাড়িতে চারঘাট চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ১০:৪৩ এএম, ২৩ মে ২০২০ শনিবার

করোনাভাইরাসের কারণে থমকে গেছে সারা বিশ্ব। বাদ যায়নি বাংলাদেশেও। যার প্রভাব পড়েছে রাজশাহীর চারঘাটেও। আর সেই কারণে বিপাকে পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষ। অসহায় ও অসচ্ছল ও কর্মহীন পরিবারগুলো। খেটে-খাওয়া, দিনমজুর, অসহায় ও অসচ্ছল মানুষদের মাঝে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বাড়ি বাড়ি গিয়ে উপহার সামগ্রী এবং শুভেচ্ছা পৌঁছে দিচ্ছেন চারঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান ফকরুল ইসলাম।

গতকাল শুক্রবার চারঘাট পৌর এলাকাসহ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে ভ্যানে করে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৌঁছে দেন তিনি। তার ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে প্রতিটি পরিবারের হাতে ঈদ উপহার হিসাবে তুলে দেন চাল, ডাল, সেমাই, চিনি, দুধ, লবন, আলু ও তেল। করোনা ভাইরাস আতঙ্কের শুরু থেকে প্রায় ০৬ হাজার পরিবারের কাছে তিনি খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছেন।

শুক্রবার ইফতারের ঠিক আগ মুহুর্তে উপজেলা চেয়ারম্যান ভ্যানে চড়ে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে হাজির হয় মেরামাতপুর গ্রামের মর্জিয়ার বাড়িতে। ফকরুল ইসলামের কাছে থেকে ঈদের উপহার পেয়ে আবেগপ্লুত হয়ে পড়েন মর্জিয়া।

মর্জিয়া বলেন, সারাদিন রোযা থেকে ইফতারের সময় উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছে থেকে ঈদ উপহার পেয়ে সত্যিই অনেক আনন্দ লাগছে। ঈদের দিন চেয়ারম্যানের উপহার দিয়ে পরিবারের সবাই মিলে খাওয়া দাওয়া করবো।

এ ব্যাপারে চারঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফকরুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা মোতাবেক করোনা পরিস্থিতির কারণে সমস্যায় আছে এমন পরিবার চিহ্নিত করেছি। কে কোন দলের তা দেখিনি। প্রয়োজন আছে এমন পরিবারের তালিকা তৈরি করেছি। তালিকা অনুযায়ী ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে ওইসব বাড়িতে গিয়ে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছি।

কিভাবে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, পরিস্থিতির শুরু থেকে প্রায় প্রতিদিনই কখনো আমার গাড়িতে করে কিংবা ভ্যানে চড়ে, আবার কখনও পায়ে হেঁটেও খাবার পৌঁছে দিয়েছি। এ পর্যন্ত উপজেলায় প্রায় ০৬ হাজার কর্মহীন ও দরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী তুলে দিতে পেরেছি। চারঘাটের মানুষের জন্য এ প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি অঙ্গীকার করেন।

স/মা