যথাযগ্য মর্যাদায় তানোর দিবস পালিত

তানোর প্রতিনিধি

নিউজ রাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৭:১৪ পিএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ মঙ্গলবার

যথাযগ্য মর্যাদায় ১১ ডিসেম্বর মহান তানোর দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার সকালে বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পাটি, বাংলাদেশ সাম্যবাদী দল, জাসদ, ও বাসদের উদ্দ্যোগে পৃথক পৃথক ভাবে তানোর গোল্লাপাড়া বাজারের গোড়াউনের পার্শে শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তাবক অর্পণ করা হয়েছে। 

প্রথমে দৈনিক সোনালী সংবাদ পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক ও নাগরিক ঐক্যের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জেলা কমিটির আহবায়ক মাহমুদ জামাল কাদেরী, তানোর আন্দোলনের অন্যতম নেতা ও পাঁচন্দর ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক জেলা কমান্ডার সাইদুর রহমান, তানোর আন্দোলনে বীর শহীদ এরাদ আলীর ভাই এরশাদ আলী পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

পরে বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক তোতা, বাংলাদেশ সাম্যবাদি দলের (এমএল) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড ফেরদৌস কামাল মাসুম, বাসদের জেলা সমন্বয়ক আলফাজ হোসেন, তানোর উপজেলা বাসদের সভাপতি সহবুল আলী, বাসদ নেতা ফিরোজ আহম্মেদ, মোহাম্মদ আলীসহ, ওয়ার্কার্স পার্টির থানা কমিটির সভাপতি আবু বক্কর, সদস্য সেকেন্দার আলী, আব্দুল জলিলসহ সহ উপস্থিত নেতাকর্মীরা শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এসময় জাসদ ও বাসদের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গ, ১৯৭৩ সালের ১১ই ডিসেম্বর তৎকালিন সরকার তানোরের প্রগতিশীল কৃষক আন্দোলনের নেতা এরাদ আলী, এমদাদুল হক মুন্টু মাষ্টার ও রশিদসহ ৪৪ নেতা-কর্মীকে সেনা ক্যাম্পে নিয়ে নির্যাতন করে তানোর গোল্লাপাড়া বাজারের গোডাউনের পার্শে জীবন্ত মাটি চাপা দিয়ে হত্যা করে। সেই থেকে তাদের স্মৃতি চারণে বাংলাদেশ সাম্যবাদী দল, জাসদ, বাসদ ও বাংলাদেশ ওর্য়াাকার্স পার্টির নেতা-কর্মী ও স্বজনরা পৃথক ভাবে স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শহীদদের আত্মার মাগফেরাৎ কামনা করেন। সেই থেকেই ১১ডিসেম্বর তানোর দিবস পালন করছে।