শরতের সাদা কাশফুলে নয়নাভিরাম পদ্মা

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৭:৫৪ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শুক্রবার

শরতের সাদা কাশফুলে নয়নাভিরাম পদ্মা। উপরে নীল আকাশ। কাশফুলের সৌন্দর্যে পদ্মা নদী যেন সেজেছে ভিন্ন রূপে। বর্ষায় ভরা নদীতে যেমন পানি এসে পদ্মার সৌন্দর্য বৃদ্ধি পেয়েছে। তার সাথে এখন নতুনভাবে যুক্ত হয়েছে কাশফুলের সৌন্দর্য। গত সপ্তাহ থেকেই নদীর মাঝে ফুটতে শুরু করেছে কাশফুলগুলো। আর এর সাথে সাথে বিনোদনপ্রেমীদেরও ভিড় বেড়েছে।

আজ শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) ছুটির দিনে বিকেলে নদীর ধারে গিয়ে দেখা যায়, বিনোদনপ্রেমিদের উপচে পড়া ভিড়। বিনোদনপ্রেমিরা প্রিয় মানুষদের সাথে পদ্মা নদীর পাড় ধরে ঘুরছেন অনেকে আবার নৌকায় চড়ে নদীতে ভাসছেন। তারা বলছেন, আগের চেয়ে পদ্মা নদী এখন ভিন্নরূপে সেজেছে।

ভরা পদ্মায় এই কাশফুলের সৌন্দের্যে অনেকে নিজেকে ক্যামেরাবন্দি করছেন। নগরীর আলুপট্টি থেকে পদ্মা গার্ডেন, মুক্তমঞ্চ, বিজিবি, টি-বাঁধ পর্যন্ত ফুটেছে কাশফুল। নৌকায় ঘোরার সময় অনেক ছোট ছোট বাচ্চা কাশফুল নিয়ে নদীর পাড়ে উঠছেন।

পদ্মা গার্ডেন এলাকায় নৌকায় পরিবার নিয়ে ঘুরতে এসেছেন আমিনুল ইসলাম। তিনি জানান, কর্ম ব্যস্ততায় সবসময় নিজের পরিবারকে সময় দিতে পারি না। তাই সময় পেলেই পরিবারের সবাই মিলে নদীর ধারে ঘুরতে আসি। আগের চেয়ে কাশফুলের কারণে নদীর সৌন্দর্য এখন অনেক বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। দুইপাশে ভরা পানি তার মাঝে কাশফুলগুলো অসাধারণ লাগছে।

আরেক বিনোদনপ্রেমী মুরাদ সরকার জানান, পড়াশুনা আর ক্লাসের ফাঁকে ফাঁকে বন্ধুদের সাথে নদীতে ঘুরে আসি। বর্ষায় পানি বাড়ার সাথে সাথে এখন কাশফুলে পরিবেশটা নতুনত্ব এসেছে। তবে দীর্ঘসময় ফুলগুলো থাকলে অনেক ভালো লাগতো। কিন্তু পানি শুকিয়ে গেলে তো কাশফুলগুলো কাটা হয়ে যায়।

মুক্তমঞ্চ এলাকার নৌকার মাঝি সাজু ও রুবেল জানান, বর্ষা বাদে বাকি সময় আমাদের কর্মহীন থাকতে হয়। বর্ষায় উর্পাজনের এক মাত্র মৌসুম। কয়েক মাস থেকেই এখন ব্যবসা ভালো হচ্ছে। তবে কাশফুলের কারণে লোকজন নৌকায় বেশি উঠছে। সকলেই পানির মাঝে গিয়ে প্রিয় মানুষদের সাথে ফোন দিয়ে ছবি তুলছে। এখন কাশফুলের কারণে আমাদের ব্যবসাও ভালো হচ্ছে।