শহীদ শামসুজ্জোহা দিবস আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাবি

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৯:১৭ এএম, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ সোমবার

অধ্যাপক সৈয়দ ড. মোহাম্মদ শামসুজ্জোহা।

অধ্যাপক সৈয়দ ড. মোহাম্মদ শামসুজ্জোহা।

শহীদ ড. শামসুজ্জোহা দিবস আজ। ১৯৬৯ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) তৎকালীন প্রক্টর ও রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক সৈয়দ ড. মোহাম্মদ শামসুজ্জোহা পাকিস্তানি সেনাদের গুলিতে শহীদ হন। ড. জোহা-ই দেশের প্রথম শহীদ বুদ্ধিজীবী। সার্জেন্ট জহুরুল হক হত্যার বিচার, আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা প্রত্যাহার ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মুক্তির দাবিসহ আইয়ুব খান বিরোধী আন্দোলনে ফুঁসে ওঠা রাবি ছাত্রদের সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।

পাকিস্তানি সেনাদের গুলি থেকে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের বাঁচাতে তিনি বলেছিলেন, ‘আমার কোনো ছাত্রের গায়ে গুলি লাগার আগে সে গুলি আমার বুকে লাগবে।’ ১৯৬৯ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার আনুমানিক বেলা এগারোটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে তাকে গুলি করে শহীদ করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে এই দিনটিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে `শিক্ষক দিবস` হিসেবে পালন করা হচ্ছে। শহীদ জোহা দিবস উপলক্ষে নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- সূর্যোদয়ের সাথে সাথে কালো পতাকা উত্তোলন, সকাল ৭টায় ড. জোহার মাজার ও জোহা স্মৃতিফলকে প্রশাসনের পুষ্পস্তবক অর্পণ, সকাল সোয়া ৭টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ, আবাসিক হল, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সমিতি ও সংগঠনের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সকাল সাড়ে ৮টায় রাবি অফিসার সমিতি কার্যালয়ে আলোচনা সভা, সকাল ১০টায় শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সিনেট ভবনে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক শ্যামল চক্রবর্তীর বক্তব্যে জোহা স্মারক বক্তৃতা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে কোরআনখানি ও বিশেষ মোনাজাত, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে দোয়া মাহফিল ও প্রদীপ প্রজ্জ্বালন করা হবে।

দিবসটি উপলক্ষে আগামী ১৩ মার্চ বিকেল ৪টায় কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সাবেক সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি।