‘সরকার সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে’

ডেস্ক নিউজ

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৯:৫২ এএম, ৯ মার্চ ২০২০ সোমবার

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পরপরই মাস্কের দাম দ্বিগুণের বেশি হয়ে গেছে। রোববার (৮ মার্চ) দুপুর আড়াইটার দিকে যে মাস্ক ৪০ টাকায় বিক্রি হয়েছে, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সেটি বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়। এবিষয়ে সরকার সজাগ দৃষ্টি রাখছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে। মাস্কের দাম বৃদ্ধি করলেই ব্যবস্থা নিতে মাঠে নামবে সরকার এমন তথ্যই জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

সূত্র বলছে, ‘সরকার সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে। দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পরই যারা মাস্কের দাম বৃদ্ধি করেছে তাদের বিরুদ্ধে শিগগিরই ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে সরকার।’ 

এদিকে দেখা যায়, রাজধানীর কারওয়ান বাজার মোড়ের আগে ফার্মগেটমুখী সড়কে ফুটওভার ব্রিজে দুপুর থেকে সন্ধ্যা রাত পর্যন্ত মধ্যবয়স্ক এক ব্যক্তিকে মাস্ক বিক্রি করতে দেখা যায়।

দুপুর ২টার দিকে মিরপুরের সাড়ে ১১-এর বাসিন্দা সাইফুল হক মিঠু একটি কালো ও একটি সবুজ রঙের মাস্ক কেনেন।

তিনি জানান, প্রতিটি মাস্ক ৪০ টাকা করে কিনেছেন। দুটি মাস্কের জন্য ৮০ টাকা দাম দিয়েছেন।

একই দোকানির কাছ থেকে দিন সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ইয়াসিন নামে এক ক্রেতা দুটি মাস্ক কেনেন।

তিনি জানান, কালো মাস্কের জন্য ৮০ টাকা ও গোলাপি রঙের মাস্কের জন্য ৬০ টাকা দিতে হয়েছে তাকে। তার দাবি, এসব মাস্ক তিনি আগে ৩০ টাকাতেও কিনেছেন। দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের খবর পাওয়ার পরই তারা দাম বাড়িয়েছে।

তবে ওই দোকানি বলছেন ভিন্ন কথা। তিনি বলেন, ‘কেনা বেশি টাকায়, তাই দাম বেশি’।

এদিকে, করোনা শনাক্তের পড় থেকে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে এবং দোকানগুলোতে মাস্ক কেনার হিড়িক পড়ে যায়। ফার্মেসি, স্টেশনারি দোকান এমনকি ফুটপাতের দোকানেও মাস্ক কিনতে এক ধরনের মাতামাতি সৃষ্টি হয়।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তিনজন রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর)। আক্রান্তদের মধ্যে একজন নারী ও দুজন পুরুষ। এর মধ্যে দুজন ইতালিফেরত। এদের বয়স ২০ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে।