এবার রাসিকের পরিচ্ছন্নকর্মীকে পেটালেন ক্রিকেটার সাব্বির

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০১:০০ পিএম, ১ জুন ২০২০ সোমবার

ক্রিকেটার সাব্বির রহমান রুম্মানের নামে এবার রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) এক পরিচ্ছন্নকর্মীকে পেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রোববার বিকাল ৫টার দিকে রাজশাহী নগরীর বেলদারপাড়া এলাকায় নিজের ফ্লাটের সামনে এঘটনা ঘটান সাব্বির। পরে পুলিশ ও স্থানীয়রা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অভিযোগকারি পরিচ্ছন্নকর্মীর নাম বাদশা (৫৫)।

বাদশা বলেন, ‘আমার কাজই ময়লা পরিস্কার করা। বিকেলে ময়লা নিচ্ছিলাম সাব্বিরের ফ্লাটসহ অন্যান্য বাসার। ওই সময় তাদের বাসার সামনে ময়লার গাড়ী রেখে কাজ করছিলাম। ওই ফ্লাটের ডেভেলপার সুমন ভাই আমাকে দেখে ডাকেন। শুনতে যেতেই সাব্বির গাড়ী নিয়ে এসে হর্ণ দিতে থাকেন। দৌড়ে এসে ময়লার গাড়ী সরাতে একটু দেরী হওয়ায় সাব্বির গাড়ী থেকে নেমে বলে ‘তোর বাবার রাস্তা?’ তখন আমি বলি আপনার বাবার রাস্তা? এসময় সাব্বির আমার বুকের উপরে জোরে আঘাত করে থাপ্পর মারে। এতে আমি বেশ ব্যাথা পাই।’

বাদশা বলেন, ‘আমি ময়লা পরিস্কার করলেও সাব্বিরের বাবার বয়সী। সাব্বির বেয়াদব একটা ছেলে। কাউকে সম্মান করে না। সবার সাথেই খারাপ ব্যবহার করে। আমি ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কাছে অভিযোগ করেছি।’

নগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারন চন্দ্র বর্মন বলেন, শুনেছি একজন পরিচ্ছন্নকর্মীর সঙ্গে সাব্বিরের ঝামেলা হয়েছে। তাই সেখানে জটলা। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে সেখানে সাব্বিরকে পায়নি। সে বাসার উপরে উঠে যায়। সাব্বির কোন অভিযোগ করেননি। পরিচ্ছন্নকর্মী বাদশাও কোন অভিযোগ করেনি। পুলিশ তাকে বারবার অভিযোগ দিতে বলেছে। তবে বাদশা কোন অভিযোগ দিতে রাজি হয়নি। বিষয়টি স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম অবগত আছেন। তিনি সমঝোতা করে দেবেন বলে শুনেছি।

এবিষয়ে নগরীর ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম বলেন, ‘সাব্বির আমাদেরই জাতীয় সম্পদ। ছোট মানুষ। রক্তের গরমে একটু ভুল করেছে। সমঝোতা করে দিয়েছি।’

রাসিকের প্রধান পরিচ্ছন্নকর্মী শেখ মো. মামুন বলেন, শুনেছি একজন পরিচ্ছন্নকর্মীকে বকাঝকা করেছে। বড় কিছু হয়নি। এসব বিষয়ে কথা বলতে একাধিকবার সাব্বিরকে ফোন করেও পাওয়া যায়নি। এর আগে রাজশাহী বিভাগীয় স্টেডিয়ামে দর্শক পেটানোর অভিযোগে ছয় মাসের জন্য জাতীয় দল থেকে বহিষ্কার হয়েছিলেন ক্রিকেটার সাব্বির রহমান।

স/মা