ছোট্ট একটা জীবন, এটাকে এত জটিল করার কিছু নেই

ইফতেখায়রুল ইসলাম

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ১১:০২ এএম, ২৮ আগস্ট ২০২১ শনিবার

প্রত্যেক মানুষের জীবনে কঠিন সময় আসে। ধরণ অনুসারে কারো খারাপ সময়ের অভিজ্ঞতা গভীর থাকে কারোটা অগভীর! কিন্তু এরকম সময় প্রায় অনেককেই অতিক্রম করতে হয়! প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম বিবেচনায় সবাই হয়তো তার প্রত্যক্ষ সাক্ষী হবার সুযোগ পায় না! কেউ নিতান্তই বিপদের মুখোমুখি হলে তার অবশ্যই প্রচেষ্টা থাকে সেই বিপদ থেকে উৎরে ওঠার! সে সময় তিনি আশেপাশে সাহায্যের খোঁজ করতে পারেন। সাহায্য প্রত্যাশী তাকে, সকলেই সাহায্য করতে পারবেন বিষয়টি এমনও নয়! 

কেউ হয়তো সাহায্য করতে পারবেন না, কারণ তাঁর সেই ক্ষমতাই নাই। কেউ সাহায্য করতে পারবেন না কারণ তিনি নিজেই অধিকতর সমস্যায় ডুবে আছেন। আর কেউ হয়তো ইচ্ছে করেই সাহায্য করবেন না! আর কেউ হয়তো সাহায্য করবেন কারণ তাঁর একইসাথে ক্ষমতা ও মন দুটোই রয়েছে। এখন এখানে কাকে আপনি ভাল বলবেন, আর কাকে মন্দ বলবেন? যিনি সাহায্য করতে চাইলেন না, তাকে কি দোষারোপ করার সুযোগ আছে? আর যারা পারলেন না তাদেরই কি কোনো ভুল আছে! 

ছোট্ট একটা জীবন, এটাকে এত জটিল করার কিছু নেই। হিসেব সহজ। জীবনে যা আপনি পাননি, সেটি নিজের ক্ষমতা থাকলে অন্যের জন্য করার চেষ্টা করেন! পৃথিবীতে ভাল মানুষের সংখ্যাই বেশি বলে বিশ্বাস করি, যদি সেই ভাল মানুষ আপনার চোখে নাই-ই পড়ে তবে আপনি নিজেই একজন দৃষ্টান্তমূলক ভাল মানুষ হয়ে উঠুন। মনে রাখুন হিংসা, দ্বেষ এর বাইরেও জীবন অনেক উপরে। সাহায্য চেয়ে পাইনি এরকম ক্ষুদ্রতাকে অবলম্বন করে আবার তার বিপদে পাশে না দাঁড়ালে আপনার আর তার চরিত্রের তফাৎ কোথায়? 

হ্যাঁ, আপনি মনে রাখতে পারেন কে আপনাকে সাহায্য করে নাই, এটি এজন্যই মনে রাখবেন যেন পরবর্তী সময়ে আপনি নিজে অন্যের জন্য সেই সাহায্যকারী মাধ্যম হয়ে উঠতে পারেন। মহান রাব্বুল আলামিন সাহায্য করার ক্ষমতা সকলকে দেয় না, এটা মাথায় রাখুন! সাহায্য পাইনি তাই মনে রাখলাম এবং ভবিষ্যতে আমিও তাকে দেখিয়ে দেবো, এরুপ ঋনাত্মক চিন্তা থেকে বের হয়ে মানুষ ও পৃথিবীকে ভালবাসতে শিখুন। দেখবেন আশপাশ অনেক সুন্দর হয়ে উঠেছে! সকলের আগামী সুন্দরতম হোক।

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

লেখক: এডিসি, মিডিয়া অ্যান্ড পিআর।