পুঠিয়ার বিদায়ী মেয়র রবিসহ দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এমপির মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ১১:৪৭ পিএম, ৩০ ডিসেম্বর ২০২০ বুধবার

রাজশাহী-০৫ আসনের সাংসদ প্রফেসর ডা. মনসুর রহমান ও পুঠিয়া পৌরসভার সদ্য সাবেক মেয়র রবিউল ইসলাম রবি। ফাইল ছবি

রাজশাহী-০৫ আসনের সাংসদ প্রফেসর ডা. মনসুর রহমান ও পুঠিয়া পৌরসভার সদ্য সাবেক মেয়র রবিউল ইসলাম রবি। ফাইল ছবি

পুঠিয়া পৌরসভার সদ্য সাবেক মেয়র যুবলীগ নেতা রবিউল ইসলাম রবি, স্থানীয় সাংবাদিক শাহনেওয়াজ ও আরিফ শাহাদাতের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছেন সাংসদ ডা. মনসুর রহমান।

বুধবার রাত ১০ টার দিকে সাংসদ মনসুর রহমান নিজেই বাদী হয়ে পুঠিয়া থানায় এজাহার দায়ের করেন।

এজাহারে অভিযোগ আনা হয়েছে, গত ২৯ ডিসেম্বর সারাক্ষণ ডট কম, সাহেববাজার ডট কম ও রাজ টাইমে সাংসদ মনসুর রহমানকে হেয় করতে পুঠিয়া পৌরসভার সদ্য সাবেক মেয়র ও আওয়ামী লীগের মনোনীত পরাজিত মেয়র প্রার্থী রবিউল ইসলামের বরাত দিয়ে মিথ্যা তথ্যে ভরা সংবাদ প্রকাশ ও প্রচার করা হয়।

ওই সংবাদে রবিউল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেছেন, নির্বাচনে সহযোগিতা করার নামে সাংসদ মনসুর রহমান তার কাছে ৩০ লাখ টাকা দাবি করেছিলেন। রবি টাকা দিতে না পায় সাংসদ মনসুর তার নিকট আত্মীয় গোলাম আজম নয়নকে স্বতন্ত্র মেয়র পদে প্রার্থী করেন।

সংবাদে রবি আরো বলেন, সাংসদ মনসুর রহমান বিএনপির মেয়র প্রার্থী মামুনের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা নিয়ে তাকে সসহযোগীতা করেছেন। যার প্রমাণ তার কাছে আছে। এমন মিথ্যা সংবাদ সরবরাহ করে সাংসদ মনসুর রহমানকে হেয় প্রতিপন্ন করাসহ মানহানি করা হয়েছে বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়। এঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে- ২০১৮ আসামী সাবেক মেয়র রবিউল ইসলাম ও সাংবাদিক শাহনেয়াজ ও আরিফ শাহাদাত অপরাধ করেছেন বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

সাংসদ মনসুর রহমান বলেন, নির্বাচনে পরাজিত হয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য সরবরাহ করে অপপ্রচারে নেমেছেন রবিউল ইসলাম ও তার সহযোগিরা।

পুঠিয়া থানার ওসি তদন্ত খালেদুর রহমান বলেন, এমপি সাহেব এজাহার জমা দিয়েছেন। ডিউটি অফিসার তা রিসিভ করেছেন। উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে রাতেই মামলা রেকর্ড করা হবে।