রাজশাহীতে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ফ্রিল্যান্সারের আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৫:১৩ পিএম, ১ জুন ২০২১ মঙ্গলবার

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রাজশাহীতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করা এক ফ্রিল্যান্সারের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।মঙ্গলবার বেলা ১১টায় পুলিশ আত্মহত্যার বিষয়টি জানতে পেরে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

নিহতের নাম আনারুল ইসলাম টুটুল। তার বাড়ি নগরীর হোসেনীগঞ্জে।

বোয়ালিয়া থানার ওসি নিবারন চন্দ্র বর্মণ জানান, রোববার দিবাগত রাত ৩টার পরে যেকোনো সময় তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তিনি যেহেতু সারা রাত জেগে সকালে ঘুমান তাই বাড়ির লোকজনের জানতে দেরি হওয়ায় আমাদের জানতেও দেরি হয়েছে। বাসার লোকজনই বেলা ১১টার দিকে জানতে পেরে পুলিশকে খবর দেয়।
 
বাড়ির লোকজন মনে করেছে, তিনি ঘুমাচ্ছেন। কিন্তু বেলা ১১টার পরও যখন ঘুম থেকে উঠছে না তখন ঘরের দরজায় নক করার পরও না উঠলে তখন পুলিশে খবর দেওয়া হয়। তার তিন ছেলেমেয়ে রয়েছে। তিনি অনেক ঋণগ্রস্ত ছিলেন বলে জানা যাচ্ছে।
 

মারা যাওয়ার আগে রোববার রাত ১১টা ১৩ মিনিটে আনারুল ইসলাম তার ফেসবুক এক্যাউন্টে লিখেছেন, তিনি ফ্রিল্যান্সিং করে অনেক টাকা করেছেন। কিন্তু দীর্ঘ সময় অসুস্থতার কারণে তিনি ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়েন। আবার কিছুটা সুস্থ হলে আবার তিনি ফ্রিল্যাসিং শুরু করেন। কিন্তু তিন মাস যেতে না যেতেই তিনি আবার অসুস্থ হয়ে পড়েন। এইজন্য তাকে কাজ বন্ধ রাখতে হয়। এদিকে আয় বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ঋণগ্রস্থ থাকায় তার পরিবারে ব্যাপক অভাব-অনটন দেখা দেয়।

এছাড়া স্ট্যাটাসে উল্লিখিত আইটি প্রতিষ্ঠানের কাছে পাওনা ১৭ লাখ টাকা না পাওয়ায় হতাশাবোধও তৈরি হয়। এসব কারণেই পৃথিবী ছেড়ে চলে যাচ্ছেন বলে স্ট্যাটাসে উল্লেখ করা হয়।