রাবির সাবেক ছাত্র শাওনের ‘মৃত্যু আমাদের প্রতিবেশী’র মোড়ক উন্মোচন

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ০৭:১৩ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ বুধবার | আপডেট: ০৭:১৬ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ বুধবার

মহামারীর এই সময়ে লেখক-পাঠক-প্রকাশকের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয়েছে  ‘মৃত্যু আমাদের প্রতিবেশী’ শীর্ষক কাব্যগ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান। গতকাল মঙ্গলবার ভার্চ্যুয়ালি এটি অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে অনলাইনেই বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন অতিথিরা।

 গতানুগতিক ধারার বাইরে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে পাঠকদের সাথে আলোচনায় অংশ নেন কাব্যগ্রন্থটির লেখক যোবায়ের শাওন। আরো উপস্থিত ছিলেন, কবি ও চিত্রশিল্পী রাজীব দত্ত, কবি ও প্রকাশক মনিরুল মনির, তথ্যচিত্র নির্মাতা ও অনুবাদক আশফাকুল আশেকীন, বই বিপণন প্রতিষ্ঠান বেঙ্গল স্টোরিজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আল আমিন রুমী, সুরজিত সরকার, মাহমুদা স্বর্ণা প্রমুখ।

একজন ‘স্পর্শকাতর’ মানুষের বয়ানে মহামারীকালীন অস্থিরতা, ব্যক্তি ও সমাজের পারস্পারিক সম্পর্কের টানাপোড়েন, সামাজিক ও মানবিক সংকট প্রতিটি কবিতায় উঠে এসেছে। কাব্যগ্রন্থটি প্রকাশ করেছে খড়িমাটি প্রকাশনী।

গ্রন্থটি প্রকাশের বিষয়ে কবি ও প্রকাশক মনিরুল মনির বলেন- মহামারী আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি বদলে দিয়েছে। বদলে দিয়েছে মানুষের সাথে মানুষের সম্পর্ক। এই বদলে যাওয়া সম্পর্কগুলোকে কবিতায় তুলে ধরেছেন কবি যোবায়ের শাওন। আমি মনে করি, কবিতাগুলো পাঠকদেরকে মহামারীর নিয়ে ভাবতে ও মহামারীর এই সংকট মোকাবেলায় একটা ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি তৈরিতে সহায়তা করবে। এই সমাজ ও সময়কে বোঝার জন্য ‘মৃত্যু আমাদের প্রতিবেশী’ খুবই গুরুত্বপূর্ণ কাব্যগ্রন্থ হতে পারে।

কাব্যগ্রন্থটি সম্পর্কে কবি যোবায়ের শাওন বলেন- মহামারী আমাদের সকলের জন্যই একটা নতুন অভিজ্ঞতা। এই একটা আকষ্মিক পরিস্থিতি মানুষের সাথে মানুষের সম্পর্ক, মানুষের সাথে পৃথিবীর সম্পর্ক কেমন আমূল বদলে দিয়েছে। আমরা দেখেছি অসুস্থ মাকে রেখে সন্তানকে চলে যেতে, দেখেছি হাজার হাজার মানুষের উপার্জনহীন হয়ে যেতে, পরিজন হারিয়ে মানুষের হাহাকার-অসহায়ত্ব তো প্রতিদিনের ‘স্বাভাবিক’ বিষয় এখন। এই বিষয়গুলো নিয়েই নির্মিত হয়েছে এক একটি কবিতা।

‘মৃত্যু আমাদের প্রতিবেশি’ পাওয়া যাবে খড়িমাটির ফেসবুক পেইজ ও রকমারিতে। ০১৭১১৯০৩২১২ নম্বরে কল করেও সরাসরি সংগ্রহ করা যাবে। মৃত্যু আমাদের প্রতিবেশী’ কাব্যগ্রন্থটি কবি যোবায়ের শাওনের দ্বিতীয় প্রকাশনা। তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘হেমলক হাতে বসে আছি’।

প্রসঙ্গত, যোবায়ের শাওন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী। তিনি বিভাগটির ১৮তম ব্যাচের ছাত্র।