শ্রীলঙ্কায় টেস্ট খেলতে যাবে ১৮-২০ জনের দল

ডেস্ক নিউজ

নিউজরাজশাহী.কম

প্রকাশিত : ১০:০৩ পিএম, ২ এপ্রিল ২০২১ শুক্রবার

ক্রিকেটের কত নাম- রাজার খেলা, জেন্টলম্যান গেম। কিন্তু ক্রিকেট বড় নির্মম, কঠিন। যার ধরনের সাথে মিল নেই অন্য কোনো খেলার। শুধু আকার আর সময়ের দৈর্ঘ্যের কারণে নয়, ক্রিকেটের রূপটাই ভিন্ন।

প্রায় সারা বছর সফর-সিরিজ। করোনার কারণেই একটু কম। না হয়, স্বাভাবিক অবস্থায় টেস্ট খেলিয়ে দেশগুলোর রাজ্যের ব্যস্ততা লেগেই থাকে। আজ এখানে, কাল ওখানে, তো পরশু আরেক জায়গায়।

 

শত সাফল্যে উদ্বেলিত, পুলকিত হবার সুযোগ নেই। আবার হাজারও ব্যর্থতা ও করুণ পরিণতির পরও হাপিত্যেশ, হতাশায় মুষড়ে পড়ারও অবকাশ নেই। ঘরে হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকাও যাবে না। ক্রিকেটের বর্ষপঞ্জি যে ঠিক করা থাকে আগে থেকেই। কাজেই এক সিরিজ বা সফর খুব খারাপ গেলেও পরের সিরিজ পূর্ব নির্ধারিত সময়েই খেলতে হয়।

নিউজিল্যান্ডে মাটিতে শ্রীহীন ক্রিকেট খেলে চরমভাবে বিপর্যস্ত ও বিধ্বস্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলেরও তা-ই করতে হবে। নিউজিল্যান্ড সফর শেষ হতেই চলে এসেছে শ্রীলঙ্কার সাথে দুই ম্যাচের ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ। দেশে ফিরে সপ্তাহখানেকের মধ্যেই উড়ে যেতে হবে শ্রীলঙ্কা।

৪ এপ্রিল দেশে ফিরে ১২ এপ্রিলই কলম্বোর উদ্দেশ্যে চার্টার্ড ফ্লাইটে চড়বেন মুমিনুল-তামিম-মুশফিকরা। আগামী ২১ এপ্রিল থেকে পাল্লেকেলেতে শুরু প্রথম টেস্ট।

১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনসহ প্রায় দেড় মাস দীর্ঘ নিউজিল্যান্ড সফরে সমান তিনটি করে ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি খেলা। ক্রাইস্টচার্চ, ডানেডিন, হ্যামিল্টন, ওয়েলিংটন, নেপিয়ার, অকল্যান্ড ভ্রমণ- সব মিলে স্বাভাবিকভাবেই কিছুটা ক্লান্ত ক্রিকেটাররা।

 

তারপরও শ্রীলঙ্কায় টেস্ট সিরিজ খেলতে যাওয়ার আগে দেশের মাটিতে অল্প ক’দিনের অনুশীলন ক্যাম্প হওয়ার কথা ছিল। তবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর কথা শুনে মনে হচ্ছে, শ্রীলঙ্কা যাওয়ার আগে দেশে আর কোনো প্র্যাকটিস হবে না। প্রস্তুতি যা নেয়ার নিতে হবে শ্রীলঙ্কায় গিয়ে।

আজ (শুক্রবার) জাগো নিউজের সাথে আলাপে নান্নু বলেন, ‘আসলে প্র্যাকটিস হবে কি না, তা জানেন হেড কোচ। তিনিই ভালো বলতে পারবেন শ্রীলঙ্কা যাওয়ার আগে ক্রিকেটারদের দেশে কোনোরকম প্রস্তুতিপর্ব থাকবে কি না। সেটা দল দেশে ফেরার পর কোচের সাথে কথা বললে জানা যাবে।’

তবে প্রধান নির্বাচক জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন, দেশে অনুশীলন হোক বা নাই হোক, তারা (নির্বাচকরা) টেস্ট স্কোয়াড চূড়ান্ত করে ফেলবেন শিগগিরই। কবে নাগাদ শ্রীলঙ্কাগামী টেস্ট দল ঘোষণা? জানতে চাওয়া হলে নান্নুর জবাব, ‘আমরা আগামী ২-১ দিনের ভেতরই খেলোয়াড় তালিকা চূড়ান্ত করে ফেলব।’

দল সম্পর্কে কোনোরকম পূর্ব ধারণা দিতে রাজি না হলেও প্রধান নির্বাচক স্কোয়াডের সম্ভাব্য সংখ্যা উল্লেখ করেছেন। তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী, শ্রীলঙ্কায় টেস্ট সিরিজ খেলতে যাবে ১৮ থেকে ২০ জনের বহর।

দলের আকার এত বড় কেন? জানতে চাইলে নান্নুর উত্তর, ‘আমরা গিয়ে তিনদিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরই প্র্যাকটিস করতে পারব। প্র্যাকটিসেও বাড়তি বোলারের দরকার পড়বে। আর আমি যতদূর জানি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে হবে নিজেদের মধ্যেই। তাই কিছু বাড়তি ক্রিকেটার নিয়ে যাওয়া।’